দীর্ঘ ২৮ বছর পর আগামী ১১ মার্চ ঢাকসু নির্বাচন


২৮ বছরের বেশি সময় পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ ডাকসু নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান জানিয়েছেন, আগামী ১১ই মার্চ ডাকসু কেন্দ্রীয় সংসদ এবং হল সংসদগুলোর নির্বাচন এক যোগে অনুষ্ঠিত হবে।

সকাল ৮টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত নির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলবে।

১৯৭৩ সালের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাদেশ, অর্থাৎ যে অধ্যাদেশের মাধ্যমে পরিচালিত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, তাতে ডাকসুর সভাপতি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। সে ক্ষমতাবলে নির্বাচনের দিন ঠিক করেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে ১৬ই সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ছাত্র সংগঠনগুলোর সঙ্গে বৈঠক করে জানিয়েছিল ২০১৯ সালের মার্চের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে ডাকসুর নির্বাচন।

আরো পড়ুন: ডাকসু নির্বাচন কি আসলেই করতে চায় কর্তৃপক্ষ?

ডাকসু নির্বাচনের পরিবেশ কতোটা আছে ক্যাম্পাসে?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সে ঘোষণা দিয়েছিল উচ্চ আদালতের এক রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে। ঐ রায়ে ছয় মাসের মধ্যে ডাকসু নির্বাচন করার ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ ছিল।

সর্বশেষ ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৯০ সালের জুলাই মাসে। স্বাধীন বাংলাদেশে এ পর্যন্ত মোট সাতবার অনুষ্ঠিত হয়েছে ডাকসু নির্বাচন।

তবে ডাকসু নির্বাচনের জন্য সব ছাত্র সংগঠনের ক্যাম্পাসে নির্বিঘ্নে সহাবস্থানকে সবচেয়ে বড় পূর্বশর্ত বলে মনে করা হয়।

অধ্যাপক মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান দাবি করেছেন, সব ছাত্র সংগঠনের শিক্ষার্থীরাই হলে থাকতে পারছে এবং বাধা ছাড়াই ক্লাস করতে পারছে।

তবে, কেউ যদি বাধার মুখে পড়ে, অভিযোগ জানালে সেটা সমাধান করা হবে বলে জানিয়েছেন উপাচার্য।

তিনি জানিয়েছেন ডাকসু নির্বাচনের প্রস্তুতি হিসেবে এরই মধ্যে কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে। এর মধ্যে ১৭ই জানুয়ারি প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

একই সঙ্গে প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তাকে সহায়তার জন্য পাঁচজন অধ্যাপককে রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া ১৫ সদস্যবিশিষ্ট একটি উপদেষ্টা পরিষদও গঠন করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন উপাচার্য। ইতিমধ্যেই গঠন করা হয়েছে একটি 'আচরণবিধি কমিটি'।


Share this:

Post a Comment

 
Copyright © Geek Bangladesh. Designed by OddThemes